সাহিত্য

রজনীগন্ধা

প্রিয় রজনীগন্ধা,
রজনী মানে কি জানো? রজনী মানে রাত। আর গন্ধা মানে কি মানে জানো? গন্ধা মানে যার কাছে থেকে গন্ধ পাই। রজনীগন্ধা হচ্ছে যার কাছ থেকে আমরা রাতের গন্ধ পাই। দিনের আলোয় সব হাসি খুশী থাকা মানুষের রাত টা হাসি খুশী যায় না।

কবিতার মহামারীতে রজনীগন্ধার কাজল কালো আঁখি ডুবে আছে। আমি কবিতা লিখতে জানি না বিধায় আমার রজনীগন্ধার আঁখি কে বাঁচাতে পারছি না। থাকুক না কবিতার মহামারী তে ডুবে। আমার রজনীগন্ধার আঁখি শিমুল তুলার মত নরম। ধরার আগেই মিলিয়ে যেতে চায়।

রজনীগন্ধা টিপ টা ঠিক দুই চোখের মাঝ বরাবর দেয়। যেনো আঁখির সাথে সাথে তার টিপ টা ও আমার দর্শনে আসে। ব্যাপার টা মোটেও মন্দ না।
রজনীগন্ধার চুলের সিঁথী টা খুব ছোট। হাত দিয়ে যখন পাশে পড়ে যাওয়া চুল গুলো ঠিক করে কানের উপর রাখে, তখন তাকে ভয়ংকর সুন্দরী লাগে আমার চোখে। মনে হয় সৌন্দর্য বেয়ে বেয়ে পড়ছে।

রজনীগন্ধার যখন মাথা নিচু করে মুখে হাত দিয়ে হাসে, তখন তার হাসির মায়ার মোহ আমাকে ছিন্নভিন্ন করে দেয়। রজনীগন্ধা আমার জন্য শাড়ি পড়ে, হাতে চুড়ি দেয়। কানে দুল দেয়, নাকে নোলক দেয়। চোখে তরতাজা কাজল দেয়। পায়ে পায়েল পরে কিনা আমি জানি না। কখনো তার পায়ের দিকে তাকাতে পারিনি। চেহারার দিকে তাকিয়ে সব ভুলে যেতাম, আর ঢোক গিলতাম। তাই পায়ের দিকে তাকানোর সাহস হয় নাই।

রজনীগন্ধা নাম টা তার পছন্দ হবে কিনা জানি না। না হলেও সমস্যা নেই। আমার রজনীগন্ধা আমার কাছেই ভালো থাকুক। কবে যে রজনীগন্ধা কে দেখতে পাবো! ছোঁয়া পাবো? আর কত দেরী? আর কত দূর?

– রজনীগন্ধার গন্ধরাজ

এই রকম আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close