ক্যারিয়ারডিজিটাল মার্কেটিংস্কিল ডেভলপমেন্ট

ভাই কষ্ট করে ভিডিও বানাই কিন্তু ভিউ হয়না। কি করতে পারি???

-ভিউ বাড়ানোর টিপ্স অবশ্যই দিবো! প্রশ্ন যেহেতু করেছেন। তার আগে বলে রাখি, যত সময় আপনি ভিউ বাড়ানোর জন্য নষ্ট করেছেন,অই সময়টা যদি কন্টেন্টের পেছনে দিতেন; আজ আপনি নিজেই ভিউ বাড়ানোর টিপ্স দিতে পারতেন।

মনে রাখবেন –

কন্টেন্ট হচ্ছে কিং নতুন ইউটিউবারদের জন্য।

-ভাই যত টুকু সম্ভব চেষ্টা করিতো ভালো ভিডিও বানানোর। আমার ভিডিও অনেক ভালো হয়। তবুও যে ভিউ পাইনা।

হুম আমিও দুই বছর আগে মনে করতাম আমার ভিডিও অনেক ভালো হয়। এখন অই ভিডিওগুলো দেখলে নিজেই লজ্জা পাই।
তারপরও কিভাবে যে ১০০-১৫০ ভিউয়ার আমার ভিডিও গুলো দেখতো! স্যালুট তাদের।
এখন অবশ্য দুই একটা ছাড়া বাকিগুলো ডিলেট করে দিয়েছি। আপনিও ২০ টা কন্টেন্ট বানানোর পর কিছুটা বুঝতে পারবেন ; আসলেই কি আপনার ভিডিও গুলো ভালো হচ্ছে কিনা। তাই আমি সব সময় বলি ২০ টা কন্টেন্ট ক্রিয়েট করুন। অল্প অল্প করে শিখতে থাকুন। তারপর না-হয় ভিউ বাড়ানোর ট্রাই করুন।

আজ আমি টিপ্স দিবো কিভাবে ভালো কন্টেন্ট ক্রিয়েট করলে ভিউ পাবেন।

১। প্রথমত আপনি কোন ক্যাটাগরিতে ভিডিও বানাবেন সেটা সিলেক্ট করবেন। মনে রাখবেন একটা চ্যানেলে নির্দিষ্ট একটা ক্যাটাগরির ভিডিও দেওয়া ভালো।

২। তারপর এমন কয়েকটি চ্যানেল খুজে বের করুন, যারা আপনি যে নিশে ভিডিও বানান সেম ভিডিও বানায়। তাদের ভিডিও গুলো ভালোভাবে দেখুন কি কি কারনে মানুষ তাদের ভিডিও পছন্দ করে এবং কি কি কারনে অপছন্দ করে। অপছন্দের বিষয় গুলো টার্গেট করুন এবং সে ভুল গুলো আপনার ভিডিওতে যেন না হয় সে দিকে খেয়াল রাখুন।যেমনঃ তার ভিডিওতে যদি আরেকটু দ্রুত কথা বলতো ভিউয়ারদের আরো ভালো লাগতো। এখন তাহলে আপনি দ্রুত বলুন যেন ভিউয়ারদের ভালো লাগে ।
যতই বলুন ইউনিক ভিডিও বানাবো তুবুও প্রথম দিকে কাউকে ফলো করা লাগে। কিন্তু ভুলেও সেম কন্ট্রেন্ট কপি করে ফেলবেন না। কোন মিউজিক, বা ডায়লগ একজন অলরেডি ফেমাস করে ফেলছে এমন মিউজিক বা ডায়লগ উইজ করবেন না।

৩। ভিডিও নিয়ে একটি স্ক্রিপ্ট লিখুন। স্ক্রিপ্ট না থাকলে নার্ভাস ফিল করবেন কথা বলতে। প্রথম ১৫ সেকেন্ডে ভিডিওতে কি কি থাকবে, কেন ভিডিওটা প্রয়োজনীয় তা উল্লেখ করুন। মাঝে মাঝে মনে করিয়ে দিন সাবস্ক্রাইব করার জন্য। ভিডিওতে অপ্রয়োজনীয় কথা কম বলার ট্রাই করবেন। মাঝে মধ্যে মজার কিছু বলুন। মজার মজার বডি-ল্যাংগুয়েজ ইউজ করুন। তাই বলে আবার মোচড়া-মোচড়ি শুরু কইরেন্না। আপনার অন্য ভিডিওগুলো কত মানুষ দেখেছেন সেটা উল্লেখ করে বলুন,কেন ভিউয়ারদের অন্য ভিডিও গুলো দেখা উচিৎ। অবশ্যই মিস ইনফরমেশন দিবেন না ভিউ পাওয়ার জন্য। তাহলে ভিউ পাবেন; ব্রান্ড হতে পারবেন না।

৪। ভিডিও কোয়ালিটি অনেক ভালো না হলেও; সাউন্ড কোয়ালিটি ভালো রাখার ট্রাই করুন।

৫। মুখে হাসি রাখতে ভুলবেন না। চেহারায় হাসি থাকলে আপনি নার্ভাস ফিল করলেও সেটা বোঝা যাবেনা।

৬। আমরা অনেকেই ক্যামেরার লেন্সের দিকে তাকিয়া কথা বলিনা। লেন্সের দিকে না তাকালে আপনার ভিউয়ারদের এট্রাক্ট করতে পারবেন না।

৭। ভিডিওতে ব্যগ্রাউন্ড সাউন্ড যেখানে যেটা মানায় সেটাই ইউজ করুন। আপনার একটা টেক রিলেটেড ভিডিওতে যদি ইমোশনাল সাউন্ড ইউজ করে বসে থাকেন, সেটা কি মানেবে? না মানাবেনা।

৮। যে ভিডিও গুলো আমরা চেয়ারে বসে বানাই। সম্ভব হলে সেগুলো দাড়িয়ে বানানো উচিৎ । তাহলে আরো এনার্জিটিক মনে হবে। স্মাট মনে হবে।

৯। প্রথম প্রথম অনেকের উচ্চারণে সমস্যা হবে।নার্ভাস ফিল করবেন। এগুলা ঠিক হয়ে যাবে।
তাহলে আজকেই ভিডিও বানানো শুরু করুন।

ভালো ভিডিও বানানোর পর ভিউ পাওয়ার জন্য কি কি করতে হবে। ধারাবাহিক ভাবে পোস্ট করবো। শেখাতো মাত্র শুরু।

Voice of Himel

voice of himel is an online Blog and video project that was born from a love of traveling and telling a good story. We share our experiences through digital content to inform and inspire others.

এই রকম আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close